ঢাকাস্থ রামু সমিতির গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত

0
4

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
হাজার বছরের ইতিহাস সমৃদ্ধ রামু অসাম্প্রদায়িকতা, সাংস্কৃতিক সম্প্রীতি ও ব্যক্তিগত অর্জনে অদম্য গতিতে এগিয়ে চলছে। রামুর এই অগ্রযাত্রাকে আরো এগিয়ে নিতে হলে এ অঞ্চলের অধিবাসীদের কর্মসংস্থান, শিক্ষার অবকাঠামোগত টেকসই উন্নয়ন অত্যাবশ্যক। এর জন্য সংশ্লিষ্টদের পাশাপাশি ঢাকাস্থ প্রতিষ্ঠিত রামুবাসীদের সম্প্রীতি’কে শক্তি হিসেবে কাজে লাগানো যেতে পারে।

গত শনিবার ঢাকাস্থ রামু সমিতি আয়োজিত “অদম্য রামুঃ আগামীর প্রেক্ষাপট” শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকের আলোচকেরা এসব কথা বলেন। রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় স্থানীয় এক রেস্টুরেন্টে এ গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় রামু উপজেলার অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখার জন্য বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত করা হয় এবং এর উত্তোরণের জন্য বিভিন্ন গঠনমূলক এবং বাস্তবসম্মত দিকনির্দেশনা আলোকপাত করা হয়।

পবিত্র কোরআন হতে তেলাওয়াতের মাধ্যমে আনুষ্টানিকভাবে এ বৈঠক শুরু হয়। জেল হত্যা দিবসে শাহাদাত বরণ করা জাতীয় চার নেতা ও গত এক বছরে রামু’র যে সমস্ত বিশিষ্টজন মারা গেছেন তাদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

সূচনা বক্তব্যে রামু সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুজন শর্মা সমিতির সাম্প্রতিক কর্মকান্ড তুলে ধরেন। রামু থেকে উঠে এসে যে সমস্ত ব্যক্তিরা নিজ যোগ্যতা দিয়ে ঢাকা তথা সারা বিশ্বে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে তাদের উদাহরণ তুলে ধরে তিনি ‘অদম্য রামু’র অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে জোর দেন। ক্যাপ্টেন হীরাম কক্সের স্মৃতিবিচরিত বাসভবনকে কক্স কমপ্লেক্স করে রামুর পর্যটনের নতুন সম্ভাবনা হিসেবে চিহ্নিত করেন তিনি।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সচিব রবীন্দ্র শ্রী বড়ুয়া রোহিঙ্গা ইস্যুতে কক্সবাজারের বাস্তব প্রেক্ষাপট আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সামনে তুলে ধরার জন্য রামু সমিতিকে আহবান জানান । রামুকে কিভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় এর জন্য একটি গঠনমূলক প্রকাশনা বের করার উপর জোর দেন তিনি।

গ্রামীণ ব্যাংকের সাবেক মহাপরিচালক জান্নাতুল কাউনাইন রামু সমিতিকে সঞ্চয় ভিক্তিক আদর্শ প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলার জন্য বিভিন্ন পরিকল্পনা তুলে ধরেন। তিনি রামুর শিক্ষার প্রসারে হত-দরিদ্র্যদের উন্নতমানের শিক্ষার প্রসারে গুরুত্ব প্রদান করেন। সঞ্চয়ভিক্তিক সু-পরিকল্পনার মাধ্যমে রামু সমিতি, ঢাকার অগ্রযাত্রায় অবদান রাখতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

আইনের শিক্ষক ও সাবেক ছাত্র নেতা প্রশান্ত ভূষণ বড়ুয়া তার বক্তব্যে রামু সমিতির সদস্যদের কানেক্টিভিটি (পারস্পরিক যোগাযোগ) কে সুসংহত করার মাধ্যমে রামু’র কৃষ্টি-সংস্কৃতিকে শিশু-কিশোরদের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার উপর জোর দেন। রামুর লোকজনকে কিভাবে দক্ষ কর্মশক্তিতে পরিণত করা যায় এবং এর জন্য রামু সমিতিকে বিভিন্ন পরামর্শ দেন তিনি। “দক্ষ জনশক্তিই পারে ভবিষ্যৎ রচনা করতে” উদ্ধৃতি করে তিনি এর জন্য একটি ওয়ার্কিং গ্রুপ তৈরী করার পরামর্শ দেন ।

সাবেক সচিব মাফরুহা সুলতানা রামু সমিতির সদস্য বাড়ানো এবং ঢাকাস্থ রামুর ছাত্রদের সংশ্লিষ্ট করার পরামর্শ দেন। তিনি আন্তর্জাতিক যে কোন সেবামূলক বা কারিগরিক প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান এর সঙ্গে চুক্তি করার মাধ্যমে রামু সমিতি প্রত্যক্ষভাবে রামু’র উপকার করতে পারে বলে উল্লেখ করেন। তিনি সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং এর মাধ্যমে ঢাকাস্থ রামুবাসীদের বিভিন্ন অর্জন, সমস্যা দুরীকরণের উপর জোর দেন।

সাবেক সাংসদ ইজ্ঞিনিয়ার সহিদুজ্জামান তার রাজনৈতিক কর্মকান্ডের স্মৃতিচারণ করে রামুবাসীর শিক্ষার অনগ্রসরতা ও জনসংখ্যার হার বৃদ্ধির মত বাস্তবিক কিছু চিত্র তুলে ধরেন। তিনি প্রান্তিক রামুর যোগাযোগ অবকাঠামো’র মাধ্যমে রামুর শিক্ষা-প্রসারে মনযোগ দেওয়ার আহবান জানান। শিক্ষা-স্বাস্থ্য খাতে সচেতনতা ও প্রশিক্ষণ দেওয়ার মত বিভিন্ন উদ্যোগ রামু সমিতি নিতে পারেন বলে তিনি যোগ করেন।

এই আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন রামু সমিতির ট্রাস্টি চেয়ারম্যান ডাক বিভাগের সাবেক মহাপরিচালক আব্দুল মোমেন চৌধুরী, সহ-সভাপতি সাইমুল আলম চৌধুরী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য লিটন কুমার শর্মা, আইন সম্পাদক আনোয়ারুল হাকিম আরাফাত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কক্সবাজার ছাত্র পরিষদের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম, রামু সমিতির অনারারি সদস্য বিশ্বজিৎ বড়ুয়া প্রমুখ।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সমিতির স্বাস্হ্য বিষয়ক সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন, সংস্কৃতি সম্পাদক বিজন শর্মা, দপ্তর সম্পাদক নিউটন সম্পাদক, আইন সম্পাদক আনোয়ারুল হাকিম, কার্যকরী সদস্য আতিক উল্লাহ চৌধুরী, মো. আব্দুল হাকিম প্রমূখ।

গোলটেবিল বৈঠক সঞ্চালনা করেন রামু সমিতির প্রচার-প্রকাশনা সম্পাদক মোহিব্বুল মোক্তাদীর তানিম। তিনি অসাম্প্রদায়িকতা, উন্নয়ন ও ব্যক্তিগত অর্জনে রামুর অদম্যতার পাশাপাশি চলমান মাদক সমস্যা ও রাজনৈতিক সম্প্রীতির মধ্যে টানাপোড়ন থেকে মুক্ত হওয়ার ব্যাপারে বক্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

রামু সমিতির কার্যকরী সদস্যদের পক্ষ থেকে সাংগঠনিক সম্পাদক সবুজ বড়ুয়া অনুষ্টানের সার্বিক সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করেন।

রামু সমিতির সভাপতি নুর মোহাম্মদ তার বক্তব্যে উপস্থিত আলোচক ও মিডিয়া পাটনার দৈনিক কক্সবাজার কে ধন্যবাদ জানান । গৃহীত পরামর্শগুলি পরবর্তী কার্যকরী সভায় আলোচনা করা হবে বলে আশ্বাস দেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here