দায়িত্বে অবহেলা মেনে নেওয়া হবে না: রাষ্ট্রপতি

    0
    5

    অনলাইন ডেস্কঃ
    রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মস্থলে থেকে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দিয়েছেন।

    রোববার কিশোরগঞ্জে তিনি বলেন, আগে হাওর এলাকায় কোনো সুযোগ-সুবিধা ছিল না। এখন সেখানে সুযোগ-সুবিধা বেড়েছে, অনেক উন্নয়ন হয়েছে। কাজেই হাওরবাসীকে এলাকায় থেকে সেবা দিতে হবে।

    “দায়িত্বে অবহেলা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া হবে না। যারা এলাকায় থাকতে পারবেন না তারা চাকরি ছেড়ে চলে যান।”

    জনপ্রতিনিধিদের এলাকায় না থাকার সমালোচনা করে রাষ্ট্রপতি বলেন, “ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার থেকে শুরু করে এমপিরাও এলাকায় থাকেন না, তারা জেলা শহর কিংবা রাজধানীতে থাকেন। এলাকার মানুষ প্রয়োজনে জনপ্রতিনধিদের পাশে পায় না। এভাবে চলতে পারে না।”

    যারা এলাকায় থাকতে পারেন না তাদের ওই এলাকার জনপ্রতিনিধি না হওয়াই উচিত বলে রাষ্ট্রপতি মনে করেন।

    রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সরকারি কলেজ মাঠে বিকালে ইটনা নাগরিক কমিটি আয়োজিত সুধী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহম্মদ তৌফিক।

    সুধী সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান, পাবলিক প্রসিকিউটর শাহ আজিজুল হক, ইটনা উপজেলা চেয়ারম্যান চৌধুরী কামরুল হাসান, ইটনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেনসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

    রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সাত দিনের কিশোরগঞ্জ সফরের পঞ্চম দিন বিকালে ইটনা উপজেলায় এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন।

    এ সময় কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী, পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ ও ইটনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাফিজা আক্তার মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন।

    এর আগে রাষ্ট্রপতি বাদলা ইউনিয়নে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সেতু ও রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সরকারি কলেজের রাশিদা খানম ছাত্রী নিবাসের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

    আগামীকাল রাষ্ট্রপতি আরেক হাওর উপজেলা অষ্টগ্রাম সফরে যাবেন। সেখানে একটি সুধী সমাবেশে ভাষণ দেবেন ও বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ঘুরে দেখবেন বলে সফরসূচিতে জানানো হয়।

    সাতদিনের সফরে গত বুধবার রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ কিশোরগঞ্জ আগমন করেন। ১৫ অক্টোবর তিনি ঢাকার উদ্দেশ্যে তিনি কিশোরগঞ্জ ত্যাগ করবেন।

    সূত্রঃ বিডিনিউজ

    একটি উত্তর ত্যাগ

    Please enter your comment!
    Please enter your name here